Friday, March 22, 2019
Home > মহানগর > বেগম খালেদা জিয়া কতদিন বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে

বেগম খালেদা জিয়া কতদিন বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কতদিন বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে থাকবেন, সেটা জানাতে পারেননি হাসপাতালের পরিচালক আবদুল্লাহ আল হারুন। জানান, রবিবার তার চিকিৎসায় গঠন করা মেডিকেল বোর্ডের বৈঠক শেষে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

শনিবার হাসপাতালটিতে বিএনপি নেত্রীর ভর্তির প্রক্রিয়া শেষ করার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নে এ কথা জানান হাসপাতালটির পরিচালক।

আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘উনি কত দিনের জন্য ভর্তি হয়েছেন তা এখন বলা সম্ভব হচ্ছে না। তার নিরাপত্তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

বিকাল পৌনে চারটার দিকে হাসপাতালে আসেন খালেদা জিয়া। তার জন্য কেবিন ব্লকে ৬১১ এবং ৬১২ নম্বর কক্ষ আগে থেকেই তৈরি করা ছিল। তবে হাসপাতাল পরিচালক জানাতে চাননি কোন কক্ষে রাখা হয়েছে বিএনপি নেত্রীকে। বলেন, ‘লিখে দিয়েন ছয় তলায় একটি কক্ষে রাখা হয়েছে।’

গত ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হওয়ার পর এ নিয়ে দ্বিতীয়বার বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে এলেন খালেদা জিয়া। গত ৭ এপ্রিল একদফা তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। এরপর জুলাইয়ে আরেক দফা আনার চেষ্টা করা হয়। তবে বিএনপি নেত্রী জানিয়ে দেন তিনি বেসরকারি হাসপাতাল ইউনাইটেড ছাড়া অন্য কোথাও যাবেন না। এমনকি সে সময় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে যাওয়ার প্রস্তাব দেয়া হলে তিনি সেটাও অগ্রাহ্য করেন। বলেন কেবল ইউনাইটেড হলেই তিনি যাবেন। পরে সেপ্টেম্বরে ইউনাইটেডে ভর্তির সুযোগ না দিলে অ্যাপোলোতে যাওয়ার অনুরোধ করে বিএনপি।

সে সময় বিএনপির দাবি ছিল, খালেদা জিয়ার যে অসুস্থতা তাতে তার বিশেষায়িত হাসপাতাল লাগবে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু মেডিকেল খুবই সাধারণমানের হাসপাতাল।

এর মধ্যে বিএনপির পক্ষ থেকে করা এক রিট আবেদনের শুনানি শেষে গত ৪ অক্টোবর হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তি এবং তার চিকিৎসায় সেপ্টেম্বরে গঠিত মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠনের নির্দেশ দেয়। আর এই নির্দেশ অনুযায়ীই নেয়া হয়েছে ব্যবস্থা।

বেলা সোয়া তিনটার দিকে পুলিশের একটি গাড়িতে করে বিএনপি নেত্রীকে কারাগার থেকে বের করা হয়। আর পৌনে চারটার দিকে তাকে আনা হয় বিএসএমএমইউ হাসপাতালে। পরে সম্মেলনে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন হাসপাতালটির পরিচালক।

আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘আমরা হাইকোর্টের একটি নির্দেশনা পেয়েছি। সেই অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তার সঙ্গে আমাদের দেখা হয়েছে ও কুশল বিনিময় হয়েছে। তার চিকিৎসার ব্যাপারে যে বোর্ড গঠন করা হয়েছে, সেই বোর্ড তাকে দেখবে।’

মেডিকেল বোর্ড করে তাকে দেখবেন- এমন প্রশ্নে হারুন বলেন, ‘আগামীকাল (রবিবার) বেলা একটার সময় মেডিকেল বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হবে। মেডিকেল বোর্ডের সভা হওয়ার পর খালেদা জিয়ার অসুস্থতার বিষয়ে বিস্তারিত বলা সম্ভব হবে।’

এর আগে ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার জন্য সবধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

এখানে নেতা-কর্মীরা দেখা করতে পারবেন কি না, এমন প্রশ্নে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘কারাবন্দিদের সঙ্গে দেখা করার বিষয়ে একটা নিয়ম আছে। এর বাইরে কেউ দেখা করতে পারবে না। আর এখানে আমাদের নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকবে। গোয়েন্দারাও থাকবেন।’

%d bloggers like this: