Tuesday, March 19, 2019
Home > তথ্যপ্রযুক্তি > আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ভূমিকা রাখবে : প্রধানমন্ত্রী

আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ভূমিকা রাখবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ভূমিকা রাখবে। আমি বিশ্বাস করি, মহাকাশে আমরা পৌঁছে গেছি। আর বাংলাদেশের জনগণ এর সুফল ভোগ করবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার থেকে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের গাজীপুর ও বেতবুনিয়া গ্রাউন্ড স্টেশন উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্যাটেলাইটের মাধ্যমে দেশের মানুষ শিক্ষা ও স্বাস্থ্য থেকে শুরু করে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবে, যা মানুষের জীবনমানকে আরও উন্নত করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা এখন অনেক জায়গায় ডিজিটাল সেন্টার করে দিয়েছি। এর সুবাদে অনেক বেকার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি কম্পিউটার চালানো শিখেছি, আমার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের কাছ থেকে। আর বাংলা টাইপ করা শিখেছি, তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের কাছ থেকে।

সজীব ওয়াজেদ জয়ের নামে গাজীপুর ও রাঙামাটি ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের নামকরণ করা হয়েছে।

উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী গাজীপুর ও বেতবুনিয়া সজীব ওয়াজেদ উপগ্রহ ভূ-কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলেন।

এ সময় কর্মকর্তারা গ্রাউন্ড স্টেশন দুটি সজীব ওয়াজেদের নামে নামকরণ করায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সজীব ওয়াজেদ জয় ও মন্ত্রিসভার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি এই গাজীপুর ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করছি। আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। এগিয়ে যাব এবং জাতির পিতা ৭ মার্চের ভাষণে যে কথা বলেছিলেন, কেউ দাবায়ে রাখতে পারবা না। তো কেউ আমাদের আর দাবায়ে রাখতে পারবে না।

এ ছাড়া বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১-এর মাধ্যমে মানুষ বিশ্বকে আরও কাছ থেকে জানার সুযোগ পেয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, আমরা একসময় চাঁদে যাওয়ার স্বপ্ন দেখতাম, এখন সেই সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। আমি আশা করি, আমাদের দেশের ছেলেমেয়েরা একদিন স্পেস-এ যাবে। দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বেতবুনিয়া ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র স্থাপন করে গেছেন। আর সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরামর্শে আমরা মহাকাশে স্যাটেলাইট পাঠিয়েছি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, এর গতিধারা যেন অব্যাহত থাকে। বাংলাদেশে এখন ৯ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে। দেশে এখন ১৩ কোটি সিম ব্যবহার হচ্ছে। ভবিষ্যতে এর চাহিদা আরও বাড়বে।

%d bloggers like this: