Wednesday, March 13, 2019
Home > নির্বাচন > সুষ্ঠু নির্বাচনের সঠিক কোনো সংজ্ঞা নেই : ইসি

সুষ্ঠু নির্বাচনের সঠিক কোনো সংজ্ঞা নেই : ইসি

নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম দাবি করেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের সঠিক কোনো ডেফিনেশন (সংজ্ঞা) নেই। গাজীপুরের নির্বাচন সুষ্ঠু ও আইনানুগ হয়েছে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আমরা দেখছি নির্বাচন আইনানুগ হয়েছে কি-না। আমরা আইনের মধ্যে থাকতে চাই। রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ মন্তব্য করেন তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো সঠিক ডেফিনেশন নেই। আইন কিন্তু নির্ধারিত। তাই আমরা আইন অনুযায়ী নির্বাচনের জন্য সমগ্র কাজই করি। আমরা ধরেই নেই, আইন অনুযায়ী নির্বাচন হলে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হয়েছে।

নির্বাচন নিয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের মন্তব্য সম্পর্কে তিনি বলেন, উনি কমেন্টস করেছেন। তিনি যদি তথ্য-উপাত্ত দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করেন এবং কেন এই কমেন্ট করেছেন তা বলেন- তাহলে আমরা ব্যবস্থা নেব। কিন্তু কেউ যদি বলে আইন অনুযায়ী হলেও নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়নি, তাহলে আমাকে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ডেফিনেশনটা দিতে হবে। সেই ডেফিনেশনটা আবার সবার কাছে গ্রহণযোগ্য কি-না সেটা কিন্তু একটি বিরাট ব্যাপার।

তিনি বলেন, পুলিশের অধীনে নির্বাচন চলে যাচ্ছে যদি বলা হয় তাহলে এটা হয়তো ভুল বলা হবে। তবে নির্বাচন কমিশনের দুর্বলতার কারণে অনেক সময় দেখা যায় কিছু পুলিশ অতি উৎসাহী হয়ে অনেক কাজ করে বসেন। যেটা নিয়ে আবার বেশি কথাও বলা যায় না। কারণ এটা ব্যক্তির বিষয়।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ৪২ জন পোলিং এজেন্টকে তুলে নিয়ে অন্য এলাকায় নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে- সাংবাদিকরা এ বিষয়ে জানাতে চাইলে তিনি বলেন, আপনারা ওই পোলিং এজেন্টদের নামের তালিকা দেন আমাদের কাছে। তারা ওই সব কেন্দ্রের জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত ছিল কি-না সেটা জানান। যদি সবকিছু ঠিক থাকে তাহলে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব।

তিনি আরও বলেন, খুলনা সিটির নির্বাচনে বাবার সঙ্গে একটি দুই বছরের শিশু গেল ভোট কক্ষে। ভোট কক্ষ থেকে বের হয়ে শিশুটি উল্লাস প্রকাশ করতে করতে বলতে থাকেন সে ভোট দিয়েছে। এটা কিন্তু আমাদের ওপরে একটা কালিমা লেপে দিয়েছে। কিন্তু আসল বিষয় তো সে তার বাবার সঙ্গে ভোট দিতে গেছে।

নির্বাচন বিশ্লেষকরা বলছেন, খুলনা ও গাজীপুর এই দুটি নির্বাচন আগের দুই সিটি নির্বাচনের চেয়ে খারাপ হয়েছে- এমন প্রশ্নের জবাবে রফিকুল ইসলাম বলেন, খুলনা ও গাজীপুরে কোনো ফায়ার আর্মস (গুলিছোড়া) হয়নি। কুমিল্লা ও রংপুরে কিন্তু আমাদের ফায়ার আর্মস করতে হয়েছে। তারপরও ওটাকে বলছেন সবকিছু ঠিক আছে আর এটাকে বলছেন না! কেন বলছেন না সেটাতো আমি বলতে পারব না। বরং আমার কাছে মনে হয়েছে এ দুটো নির্বাচনে লাঠিচার্জও করতে হয়নি ও ফায়ার আর্মসও করতে হয়নি। কিন্তু ও দুটো (কুমিল্লা ও রংপুর সিটি) নির্বাচনে আমাদের এটা করতে হয়েছে।

%d bloggers like this: