Wednesday, December 12, 2018
Home > মহানগর > খুলে দেয়া হলো মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার

খুলে দেয়া হলো মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধনের পর জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য খুলে দেয়া হলো বহুল প্রত্যাশিত মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এর পরপরই ফ্লাইওভারটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়।

এই প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হয়েছে এক হাজার ২১৮ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকার অর্থায়ন করেছে ৪৪২ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। সৌদি ফান্ড ফর ডেভেলপমেন্ট (এসএফডি) এবং ওপেক ফান্ড ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ওএফআইডি) দিয়েছে ৭৭৬ কোটি ১৬ লাখ টাকা।

চার লেনের এ ফ্লাইওভারে ওঠানামার জন্য ১৫টি র‌্যাম্প রয়েছে। তেজগাঁওয়ের সাতরাস্তা, এফডিসি, মগবাজার, হলি ফ্যামিলি হাসপাতাল, বাংলামোটর, মালিবাগ, রাজারবাগ পুলিশ লাইন এবং শান্তিনগর মোড়ে ওঠানামা করার ব্যবস্থা রয়েছে। এটি রিখটার স্কেলে ১০ মাত্রার ভূমিকম্প সহনীয় বলে প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে। প্রতিটি পিলার পাইলের গভীরতা প্রায় ৪০ মিটার গভীর।

২০১৩ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায় নয় কিলোমিটার লম্বা ফ্লাইওভারটির নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন। ফ্লাইওভারটির কাজ তিন ভাগে করা হয়েছে। গত বছরের ৩০ মার্চ সাতরাস্তা-মগবাজার-হলি ফ্যামিলি হাসপাতাল অংশে যান চলাচল উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর ফ্লাইওভারের ইস্কাটন-মৌচাক অংশের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তৃতীয় ধাপে এফডিসি মোড় থেকে সোনারগাঁও হোটেলের দিকের অংশটি যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয় এ বছর ১৭ মে। এবার মগবাজার-মৌচাক-মালিবাগ-শান্তিনগর-রাজারবাগ অংশ খুলে দেয়া হলো।

এর মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ হলো রাজধানীর দ্বিতীয় বৃহত্তম এই ফ্লাইওভারটি। এতে রাজধানীর যানজট অনেকটা কমবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

%d bloggers like this: