১০০ সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা শাপলা মিডিয়ার

গত এক দশক ধরে ঢাকাই চলচ্চিত্রে মন্দা অবস্থা বিরাজ করছে। নতুন সিনেমা না-থাকায় পুরোনো সিনেমা দিয়ে হলগুলো চালু রাখা হয়েছে। প্রতিনিয়ত হল মালিকদের গুনতে হচ্ছে লোকসান। যে কারণে সময়ের সঙ্গে বন্ধ হচ্ছে প্রেক্ষাগৃহ। ঠিক এই সময় একসঙ্গে ১০০ সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৫টায় বিএফডিসির জসিম ফ্লোরে আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন এসব সিনেমার ঘোষণা করা হবে। একই সঙ্গে ১০টি সিনেমার মহরত হবে বলে  জানান শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান।

১০০ সিনেমার সমন্বয়ক হিসেবে যুক্ত রয়েছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা শাহীন সুমন ও অপূর্ব রানা। এ প্রসঙ্গে শাহীন সুমন বলেন, ‘এই ১০০ সিনেমা নির্মাণ করবেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নির্মাতারা। আমরা মনে করি, পরিচালক সমিতির সকল নির্মাতাই দক্ষ। তাই এগুলো নির্ধারণ করা হবে লটারির মাধ্যমে। এরমধ্যে ১০টি সিনেমার গল্প, পরিচালক ও শিল্পী সব প্রস্তুত আছে। চলতি মাস থেকেই এগুলোর শুটিং শুরু হবে। টানা লট ধরে ১০টি করে সিনেমার কাজ চলবে। শুটিং শেষে এগুলো সেন্সরে যাবে। ছাড়পত্র পাওয়ার পর প্রেক্ষাগৃহ, ইউটিউব ও টেলিভিশনে মুক্তি পাবে।’

অপূর্ব রানা  বলেন, ‘অনেক সময় দেখি শুধু মহরতেই সব সীমাবদ্ধ, সিনেমার শুটিং আর হয় না। তবে এই সিনেমার শুটিং শেষ হবে। আমরা একসঙ্গে দীর্ঘ মেয়াদের কাজ শুরু করেছি। একই সঙ্গে ২০টি ক্যামেরার কাজ করবে। এরই মধ্যে কক্সবাজারে চার মাসের জন্য শুটিংয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। একসঙ্গে এতগুলো সিনেমার কাজ করলে স্বাভাবিক কারণে শুটিংয়ের খরচ কম হবে।’

প্রথম ১০ সিনেমায় নায়িকাদের মধ্যে আছেন—আঁচল, বিপাশা কবির, মিষ্টি জান্নাত, আফ্রি, তানহা তাসনিয়াসহ আরও কয়েকজন। নায়কের তালিকায় রয়েছেন নিরব, ইমন, সাইফ খান, সুমিত সেনগুপ্ত, শিপন মিত্র, সাঞ্জু জন, জয় চৌধুরী, কায়েস আরজু ও আমান রেজা।

চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নম্বর লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সেলিম খান ও দলের সমর্থিত ৯ জন ইউপি মেম্বার ও সংরক্ষিত তিন নারী প্রার্থীকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।