সক্রিয় হচ্ছেন বড় বিনিয়োগকারীরা

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) বিশেষ উদ্যোগের ফলে সক্রিয় হচ্ছেন বড় বিনিয়োগকারীরা।

সোমবার (২৫ জুলাই) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে কমিশন ভবনে এ বিষয়ে একটি বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ৩০ জন বড় বিনিয়োগকারী উপস্থিত ছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ।

বৈঠক শেষে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের অর্থনীতি এখন অনেক শক্তিশালী। সরকার যেসব উদ্যোগ নিয়েছে তাতে পুঁজিবাজার নিয়ে যেসব গুজব রয়েছে তা শিগগিরই কেটে যাবে। এ বিষয়ে বড় বিনিয়োগকারীরা একমত পোষণ করেছেন। বিএসইসি এ বিষয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, পুঁজিবাজারে চলমান সংকট নিয়ে বড় বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। স্বল্পমেয়াদি, মধ্যমেয়াদি ও দীর্ঘমেয়াদি করণীয় নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় তাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে সক্ষমতা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের ইনডেক্স মুভার স্ক্রিপ্টে (শেয়ার) বিনিয়োগ বাড়ানোর তাগিদ দেওয়া হয়। এ সময় বড় বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগ বাড়ানোর আশ্বাস দেন।

মুখপাত্র বলেন, বর্তমানে ফান্ডামেন্টাল শেয়ার অনেক বটম প্রাইসে রয়েছে। এ পর্যায়ে তারা বিনিয়োগ করলে ভালো রিটার্ন পাওয়া যাবে বলে আমরা জানিয়েছি। বর্তমান বাজারে সাইকোলজিক্যাল পেনিক অনেক বেশি। বড় বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বিক্রির চাপে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা আস্থার সংকটে পড়েছেন। ফলে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের পক্ষ থেকেও সেল প্রেশার বেড়েছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য বড় বড় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ বাড়ানোর তাগিদ দেওয়া হয়েছে। এতে আশা করা যায় শিগগিরই বাজার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।