নিউমার্কেটে ফটকে টানানো হয় শান্তির সাদা পতাকা

রাজধানীর নিউমার্কেটে শান্তি ফেরাতে সাদা পতাকা উড়িয়েছেন ব্যবসায়ীরা। বুধবার (২০ এপ্রিল) মার্কেটের প্রতিটি ফটকে টানানো হয় সাদা পতাকা।

এ বিষয়ে নিউমার্কেট জোনের এডিসি শাহেন শাহ মাহমুদ বলেন, ব্যবসায়ীরা প্রত্যেক মার্কেটে সাদা পতাকা উড়িয়েছেন। ঢাকা কলেজের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছেন তারা, বিষয়টা সমাধান হচ্ছে। বাকি উত্তেজনাও হয়তো ছাত্রদের মধ্যে থাকবে না।

এদিকে বিকেলের দিকে নিউমার্কেট এলাকায় হঠাৎ করে উত্তেজনা দেখা দেয়। এসময় মার্কেটের সামনে দোকান কর্মচারীরা এবং ঢাকা কলেজের সামনে শিক্ষার্থীরা অবস্থান নেন।

নিউমার্কেট খুলে দেওয়া হয়েছে- এমন খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে কলেজের সামনে জড়ো হতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। পরে তারা নিউমার্কেট খোলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু করেন।

jagonews24

ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের দাবি- গত দুদিন ধরে চলা সংঘর্ষের ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে ব্যবস্থা না নেওয়া পর্যন্ত নিউমার্কেটের কোনো দোকান খোলা যাবে না।

এ বিষয়ে এডিসি শাহেন শাহ মাহমুদ বলেন, হঠাৎ করেই আবারও পরিস্থিতি অস্বাভাবিক হয়। আমরা প্রয়োজন না হলে কখনও শক্তি প্রয়োগ করি না। যতটুকু প্রয়োজন ছিল ততোটুকু শক্তি প্রয়োগ করেছি। আপনারা দেখেছেন আজকে পরিস্থিতি একেবারেই স্বাভাবিক ছিল। দিনটা আমরা খুব সুন্দর কাটাচ্ছিলাম। ছাত্ররাও অনেক শান্ত ছিল। কিন্তু হঠাৎ করেই একটু অন্যরকম পরিস্থিতি হয়।

এদিকে ব্যবসায়ীরা বলছেন, গত দুদিনের সংঘর্ষে দোকান বন্ধ থাকায় নিউমার্কেট এলাকার ১০ হাজার ব্যবসায়ীর প্রায় ২০০ কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। ঈদের বেশি দিন বাকি নেই, যতদিন যাচ্ছে ততোই লোকসানের মাত্রা বাড়ছে।

jagonews24

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক চান বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

এর আগে সোমবার রাত ১২টার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকান কর্মীদের সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা চলে এ সংঘর্ষ। এরপর রাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসলেও মঙ্গলবার সকাল ১০টার পর থেকে ফের দফায় দফায় শুরু হয় সংঘর্ষ, যা চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত।

এ ঘটনায় উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের মাঝে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। সংঘর্ষের মাঝে পড়ে মারা যান একটি কুরিয়ার সার্ভিসের ডেলিভারিম্যান নাহিদ।