ডেঙ্গু পরিস্থিতিতে লার্ভা নয়, মশা মারতে হবে আগে : কীটতত্ত্ববিদ

বর্তমান ডেঙ্গু পরিস্থিতিতে লার্ভা নয়, অ্যাডাল্ট (বয়প্রাপ্ত) মশা নিধনে সিটি করপোরেশনকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা নিতে হবে বলে উল্লেখ করেছেন রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইসিডিআর) সাবেক মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও চিকিৎসা কীটতত্ত্ববিদ ড. তৌহিদ উদ্দিন  আহমেদ।

বুধবার (১১ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজ (সিজিএস) আয়োজিত ডেঙ্গু পরিস্থিতি গণমাধ্যমে তুলে ধরতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ড. তৌহিদ উদ্দিন  আহমেদ বলেন, বর্তমান ডেঙ্গু পরিস্থিতিতে প্রধান কাজ হওয়া উচিত অ্যাডাল্ট মশা নিধন, অ্যাডাল্ট মশা মারার জন্য ব্যাপক প্রচেষ্টা গ্রহণ করতে হবে। বর্তমানে মশার লার্ভা মারার যে ব্যাপক প্রচেষ্টা দেখা যাচ্ছে, তা এই মুহূর্তে দরকার নেই। কিংবা লার্ভা নিধনে নিয়মিত কর্মসূচি চালিয়ে গেলেই হবে। বর্তমানে অ্যাডাল্ট মশা মারার চেষ্টা করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বারবার নির্মাণাধীন ভবনের কথা বলা হচ্ছে, কিন্তু নির্মাণাধীন ভবনে ফাইন করে চলে আসা হলো, কিন্তু সেখানকার অ্যাডাল্ট মশাগুলোর কী হবে? সেখানে যদি মশা মারার ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হয়, সেখানে অ্যাডাল্ট মশাগুলো তো থেকেই যাচ্ছে। সেইজন্যে ঢাকা শহরে যে নির্মাণাধীন ভবনগুলো রয়েছে, সেখানে ফগিংয়ের মাধ্যমে অ্যাডাল্ট মশা মারার ব্যবস্থা সিটি করপোরেশনকে করতে হবে। প্রয়োজনে বাড়ি বাড়ি যেতে হবে। এখন সমস্ত প্রচেষ্টা এবং অর্থ অ্যাডাল্ট মশা মারার জন্য ফগিংয়ে খরচ করতে হবে। এই মুহূর্তে সিটি কর্পোরেশনের অ্যাডাল্ট মশা মারার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা নিতে হবে। ঠিকমতো অ্যাডাল্ট মশা মারা হচ্ছে কিনা তাও তত্ত্বাবধান এবং পর্যবেক্ষণ করা উচিত।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে আরো আলোচনা করেন সিজিএস’র চেয়ারম্যান এবং কীটতত্ত্ববিদ ড. মনজুর আহমেদ চৌধুরী এবং সিজিএস’র নির্বাহী পরিচালক জিল্লুর রহমান।