Thursday, October 11, 2018
Home > সম্পাদকীয় > বিদায় বন্ধু ॥ ফিরে আসুন বার বার

বিদায় বন্ধু ॥ ফিরে আসুন বার বার

মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) জেএফআর (জ্যাকব ফার্জ রাফায়েল) জ্যাকব গত বুধবার বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ৯২ বছর বয়সে চলে গেলেন না ফেরার দেশে। ১৯৭১ সালে পাকবাহিনীর আত্মসমর্পণের অন্যতম রূপকার ছিলেন তিনি। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর সুযোগ্য নেতৃত্বে ভারতীয় বাহিনী অংশ নেয়। পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের মানুষের কাছে জে. জ্যাকব অতি জনপ্রিয় ব্যক্তি। তিনি সে সময় পাকিস্তানের জেনারেল নিয়াজীর সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে বলেন, তোমরা যদি প্রকাশ্যে এবং আমাদের শর্ত মেনে আত্মসমর্পণ কর তাহলে তোমাদের লোকজনকে সুরক্ষা দেয়ার দায়িত্ব আমাদের। তা না হলে তোমাদের দায়িত্ব আমরা নিতে পারব না। এ কথা বলার পর জেনারেল নিয়াজী গড়িমসি করতে শুরু করলে জ্যাকব তখন তাকে বলেন, তোমাকে এর চাইতে ভালো কোন শর্ত দিতে পারবো না। সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য তোমার হাতে আধা ঘণ্টা সময় আছে। লেফটেন্যান্ট জেনারেল জ্যাকব উল্লেখ করেন, এরপরই জেনারেল নিয়াজী আত্মসমর্পণে রাজি হন।
মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখা বিদেশী বন্ধুদের সম্মাননা জানানোর উদ্যোগ একমাত্র বঙ্গবন্ধু কন্যাই নিয়েছেন। তাঁর নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার গত ২০১২ সালের ২৭ মার্চ তারিখে জে. জ্যাকবসহ ৮৩ জনকে সম্মাননা প্রদান করেন। তৎকালীন রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা যৌথভাবে এ সম্মাননা তুলে দেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল জেএফআর জ্যাকবের হাতে। সে সময় তিনি আবেগতাড়িত হয়ে মে দাঁড়িয়ে দর্শকদের দিকে তাকিয়ে স্যালুট দেন এবং ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান দেন।
মহান এ বন্ধুর মহাপ্রয়াণে আমরা একজন অভিভাবককে হারিয়েছি। একজন মহান ব্যক্তিত্বকে হারিয়েছি। আজ এ শোকের দিনে তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: