Tuesday, October 16, 2018
Home > এক্সক্লুসিভ নিউজ > ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের মধ্য দিয়ে ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন শুরু করেছে আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হল মিলনায়তনে ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি এই ছাত্র সংগঠনটি আত্মপ্রকাশ করে। bsl4আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের পর সকাল ৮টা ১ মিনিটে কার্জন হলে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। bsl3এরপর সকাল ১০টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে র‍্যালি বের করে ছাত্রলীগ। শাহবাগ, মৎস্য ভবন, কাকরাইল ও বিজয়নগর মোড় হয়ে আওয়ামী লীগের পার্টি অফিস ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে এসে শেষ হয় র‍্যালি। bsl2প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আগামীকাল ৫ জানুয়ারি সকাল ১০টায় কলা ভবনের সমনের বটতলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করবে ছাত্রলীগ। পরদিন ৬ জানুয়ারি বিকাল ৫টায় টিএসসি’র সড়ক দ্বীপসংলগ্ন ডাসে দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ৭ ও ৮ জানুয়ারিও কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ নিয়েছে ঐতিহ্যবাহী এই ছাত্র সংগঠনটি। এর মধ্যে ৭ জানুয়ারি সকাল ১১টায় টিএসসি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনী বিতরণ ও পাঠচক্র উদ্বোধন করা হবে। আর ৮ জানুয়ারি বিকাল ৩টায় টিএসসির সড়ক দ্বীপসংলগ্ন ডাসে ইতিহাস ও মুক্তিযুদ্ধের ওপর বিশেষ আলোকচিত্র প্রদর্শন করা হবে।

ছাত্রলীগ

ছাত্রলীগ। একটি সংগঠন একটি ইতিহাস। স্বাধীন বাংলাদেশের জন্মের প্রায় দুই যুগ আগে ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের জন্ম।

এর পর ৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান, ৭০ এর নির্বাচন আর ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ। সব ক্ষেত্রেই সংগঠনটি রেখেছে অগ্রণী ভূমিকা। স্বাধীনতার পর নামের সাথে যুক্ত হয়েছে ‘বাংলাদেশ’ ছাত্রলীগ।

তবে স্বাধীনতার পরও সংগঠনটি দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা, মানুষের অধিকার আদায় ও রক্ষায় কম ভূমিকা রাখেনি। যদিও ঐতিহ্যবাহী ছাত্রলীগের স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে কিছু নেতাকর্মী সংগঠনটির ঐতিহ্যের মুখে বেশ খানিকটা কালিমাও লেপন করেছেন।

তবে আশার কথা হলো, ছাত্রলীগ শুধু এসব দুর্ণাম, অপবাদ আর অপমাণ নিয়েই পথ চলতে চায় না। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্ব অনেকটা অছাত্র, কুছাত্র, আদু-ভাই, দাদু ভাইমুক্ত। ক্যাম্পাস ও শিক্ষা মুখি হতে চেষ্টা চালাচ্ছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃবৃন্দ শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে সেবার ব্রত নিয়ে এগোনোর প্রত্যয়ে উদযাপন করছে ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। সেই সাথে পা রাখছে ৬৯ বছরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: