Tuesday, October 16, 2018
Home > সারা বাংলাদেশ > দল কিংবা প্রতীকের বিরুদ্ধে নির্বাচন করিনি: মানিকগঞ্জ পৌর মেয়র

দল কিংবা প্রতীকের বিরুদ্ধে নির্বাচন করিনি: মানিকগঞ্জ পৌর মেয়র

কোন দল কিংবা প্রতীকের বিরুদ্ধে নির্বাচন করিনি, অন্যায় ও অপশক্তির বিরুদ্ধে নির্বাচন করেছি বলে মন্তব্য করেছেন মানিকগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নবনির্বাচিত মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিম।

তিনি বলেন, আমি ‘ডু অর ডাই’ নীতিতে ন্যায়-অন্যায়, ভাল-মন্দ, সত্য-মিথ্যা ও অপশক্তির হাত থেকে পৌরবাসীকে মুক্ত করতে নির্বাচনের মাঠে নেমেছিলাম। সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠিত করতে রায় দিয়ে আমাকে জয়ী করেছেন ভোটাররা।

শনিবার দুপুরে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

নবনির্বাচিত এই মেয়র বলেন, ২০০৩ সালে আমি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণ করি। ১২ বছর আমি সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছি।

জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক এই সাধারণ সম্পাদক অভিযোগ করে বলেন, গত বছরের দলীয় কাউন্সিলে শুধুমাত্র একটি পদে নির্বাচন দিয়ে ষড়যন্ত্র করে আমাকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমি জানতাম, পৌর নির্বাচনে দল আমাকে সমর্থন কিংবা মনোনয়ন দিবে না। এ কারণে আমি আগে থেকেই পৌর নাগরিক কল্যাণ সমিতির ব্যানারে নানা নাগরিক সমস্যা সমাধানে আন্দোলন ও কর্মসূচি পালন করেছি।

ভোটাররা আমাকে পাশে পেয়ে, আমার প্রতি আস্থাশীল হয়ে ও প্রধান প্রধান পৌর নাগরিক সমস্যা সমাধানে ভোট দিয়ে মেয়র নির্বাচিত করেছেন। মেয়র হয়ে নয়, সকলের সেলিম ভাই হয়ে থাকতে চাই বলেও অনুরোধ করেন তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তরে নবনির্বাচিত এই মেয়র বলেন, দুর্নীতির সঙ্গে কোন আপোষ নেই। ফাস্ট পাইয়োরিটি দিয়ে পৌরসভাকে দূর্নীতিমূলক করব। সরকারি কোন সংস্থার অডিটর দিয়ে পৌরসভা অডিট করে আমি দায়িত্ব গ্রহণ করব।

দায়িত্ব গ্রহণের প্রথম তিন মাসে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শহরের একমাত্র মুক্তিযোদ্ধা ও শিশুপার্ক সংস্কার, গ্যাস, পানি ও বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধান করা হবে বলেও তিনি পৌরবাসী আশ্বাস্ত করেন।

মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম ছারোয়ার ছানু, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব চক্রবর্তী, জেলা সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মতিউর রহমান, জেলা ঘাতক দলাল নির্মূল কমিটির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট দীপক ঘোষ, সাবেক প্রচার সম্পাদক শহিদুল ইসলাম পুলক, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান সেন্ট, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তানজিম উল্লাহ প্রধান লিল্টু ও গণজাগরণ মঞ্চের জেলা আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান মামুন উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, মানিকগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত রমজান আলী (নৌকা), বিএনপি মনোনীত নাসির উদ্দিন আহম্মেদ যাদু (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র গাজী কামরুল হুদা সেলিম (নারিকেল গাছ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থীকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে গত ৩০ ডিসেম্বর মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। – See more at:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: